পৃষ্ঠাসমূহ

২১ জুন, ২০১৫

সিনেমার পর্দায় বাবা-ছেলে

সিনেমাকে বলা হয় বাস্তবের পুনঃনির্মাণ। তাই অনেক সিনেমাই আমাদের জীবন ঘেঁষে হেঁটে যায়। তখন সেলুলয়েডের জানালা দিয়ে আমাদের নিজেদের জীবনেরই অনেক অনুভূতি আমরা পুনরায় আবিষ্কার করি। আর এই অনুভূতিগুলো কখনও ফুরিয়ে যায় না, সেই সিনেমাগুলো আবার কখনও দেখতে বসলে সেই একই অনুভূতিগুলো হৃদয়ের মাঝে ফিরে আসে।

বাবা-ছেলের সম্পর্ক নিয়ে যেসব সিনেমা দেখেছি সেগুলোর মধ্যে অনেকগুলোই আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেছে, মনে করিয়ে দিয়েছে নিজের জীবনেরই ছোট ছোট কোন ঘটনা অথবা স্বপ্নের কথা। এগুলোর মধ্যে কয়েকটা হয়ত খুবই নামকরা সিনেমা, কিছু হয়ত একান্তই ব্যবসায়িক সিনেমা। সেগুলোর মধ্যে থেকে সাতটি সিনেমা নিয়ে এই লেখাটি। কোন সিনেম্যাটিক বিশ্লেষণ নয়, শুধু ঘটনাগুলোকে হালকা স্পর্শ করে যাওয়ার চেষ্টা করলাম এখানে।।


৩১ মে, ২০১৫

বছর ঘুরে অতন্দ্রিলা

আমি প্রতিদিন নিজেকে অতিক্রম করে যাচ্ছি,
জীবনের প্রতিটি মুহূর্তকে স্পর্শ করে করে—
আমি অতিক্রম করে যাচ্ছি তোমার মায়াময় দু'টি চোখ,
গালভেজা তোমাকে আমি যাচ্ছি পেছনে ফেলে,
যুদ্ধে যাওয়া সৈনিকের মত, মাথায় শিরস্ত্রাণ চাপিয়ে
আমি রেখে যাচ্ছি জীবনের সমস্ত ক্লেদ,
যত আশা, যত প্রেম, যত ভালবাসা—
তোমার-আমার বর্ণিল সময়ের কবিতা,
ক্রমশ গ্রাস করে নিচ্ছে এক বিষণ্ন ঋণাত্মক কুয়াশা,
আমাদের আকাশে স্বপ্নঘুড়ির ছেঁটে ফেলা ডানা,
সপ্তাহশেষ রাত্রির রানওয়ের জানালা—
—অতন্দ্রিলা—
তোমার নীল রঙের শাড়ী—কমলা রঙের রোদ,
স্মিত হাস্যে কঠোর কপট ক্রোধ,
অতীত—ভীষণ অতীত হয়ে যাচ্ছে প্রতিদিন,
বিপন্ন কাঁচপোকারা ঘুমিয়ে গেছে সেই কবে—
জোনাকিরাও নীরব হয়েছে অপ্রেমের ফাঁদে,
মেঘ ছুঁয়ে ওড়া ক্লান্ত বুনোহাঁসের মত,
নিওলিথ জ্যোৎস্নায় ওরা ফিরে যাবে আজ,
আকাশের যত নক্ষত্র—উজ্জ্বলতম তারা—
নিয়ে চলে যাবে মহীনের ঘোড়া—অথবা
জীবনানন্দের হন্তারক ট্রামে চেপে নির্জনতার সুর, আজ—
বিপরীত দিকে আরও বহুদূর—বহুদূর চলে যাব আমরা।।


২১ মে, ২০১৫

নতুন চলচ্চিত্র নতুন নির্মাতা - এপ্রিল ২০১৫

নামটা দেখেই প্রথম ভাল লেগেছিল— 'নতুন চলচ্চিত্র নতুন নির্মাতা'। জেনেছিলাম ফেসবুকের মাধ্যমেই। পড়েশুনে বুঝলাম যে ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর যৌথ উদ্যোগে নতুন নির্মাতাদের সিনেমা নিয়ে আয়োজিত একটি বছরব্যাপী প্রতিযোগীতা এটি। প্রতিযোগীতায় স্বল্পদৈর্ঘ্য, পূর্ণদৈর্ঘ্য এবং প্রামাণ্যচিত্র— এই তিনটি বিভাগ রয়েছে। আরও জানলাম প্রতিযোগীতার প্রথম প্রদর্শনীটি অনুষ্ঠিত হবে শনিবার ২রা মে ২০১৫ বিকাল ৪টায়, শিল্পকলা একাডেমীর চিত্রশালা অডিটোরিয়ামে। মনে হল এই আয়োজনটি নতুন নির্মাতাদের যোগ্যতা প্রমাণের একটি ভাল প্ল্যাটফর্ম হতে পারে। তাই আমি প্রদর্শনীটি দেখতে যাবার সিদ্ধান্ত নিলাম।


৭ এপ্রিল, ২০১৫

ঈপ্সিত জীবন

বহুতল ভবনের সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছে আতিকুর। পায়ের স্যান্ডেলের ছিঁড়ে যাওয়া ফিতেটা দেখে নিচ্ছে বারবার। ময়লা সবুজ শার্টের বুকপকেটে বলপয়েন্টের কালির দাগ। গ্রাম থেকে আজ সকালেই রাজধানীতে এসেছে সে। এখন চৈত্রের প্রচণ্ড রৌদ্রের দুপুরে ঘেমে নেয়ে উঠে একটু জিরিয়ে নিচ্ছে দালানের ছায়ায়।